TT Ads

সময়ের আলোচিত একটি ইস্যু কণ্ঠশিল্পী ইলিয়াস হোসেন ও অভিনেত্রী হুমায়রা হোসেন সুবহা। ১ ডিসেম্বর তাদের বিয়ে হওয়ার পর থেকে অনেক নেতিবাচক বিষয় সামনে এসেছে। দুজন-দুজনের প্রতি এনেছেন নানা অভিযোগ।

এ নিয়ে মঙ্গলবার বিকেলে নিজ বাসায় সংবাদ সম্মেলন করেন সুবহা। সেখানে তিনি বলেন, ‘তার আমার সমস্যার কারণ তিনটি। প্রথম, ইলিয়াস ২০২৩ সালে আওয়ামী লীগ থেকে জাতীয় নির্বাচনে অংশ নিতে চায়। চাচ্ছিল আমার ফেমটাকে কাজে লাগাতে। দ্বিতীয়ত, সে মনে করেছিল আমার অনেক টাকা। আর তৃতীয় কারণ, সে চেয়েছিল আমাকে ভোগ করতে। সেটা সে এর আগেও অনেক মেয়ের সঙ্গে করেছে।’

সুবহা সংবাদ সম্মেলনে জানান, ১ ডিসেম্বর তাদের বিয়ের আগেও কলমা পড়ে তাদের বিয়ে হয় এবং ইলিয়াস সুবহার বাসায় নিয়মিত যাতায়াত করত। তারা একসঙ্গে থাকত।

সুবহার দাবি, ১ ডিসেম্বর বিয়ের সময় ইলিয়াস সুবহাকে শর্ত দেয় যে এই বিয়ের খবর যেন জানাজানি না হয়। বিয়েতে সুবহার পরিবারের অনেকে থাকলেও ছিল না ইলিয়াসের পরিবারের কেউ।

ইলিয়াসের সাবেক স্ত্রী কারিনের ব্যাপারেও জানতেন সুবহা। সে ব্যাপারেও কথা বলেন তিনি।

সুবহা বলেন, ‘কারিন সুইডেন থাকে। আমি ইলিয়াসকে প্রশ্ন করেছিলাম কারিন আসলে তোমার লাইফে কী? কে? তোমার গার্লফ্রেন্ড? তখন ইলিয়াস আমাকে বলেছিল, কারিন তার গার্লফ্রেন্ড।

‘ইলিয়াস এও বলেছিল যে কারিন তো সুইডেন থাকে, ওর আসলে বিয়ের চিন্তা নাই। ও লিভ-ইন এ বিশ্বাস করে। সামাজিকভাবে যেন অসুবিধা না হয়, সে কারণে আমরা স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দিতাম।’

সুবহা জানান, তিনি সে সময় মনে করেছেন সবার জীবনেই একটা পাস্ট থাকে। সুবহারও আছে। ইলিয়াস ভুলটা বুঝতে পেরেছে। তাই নেগেটিভ না ভেবে সব পজিটিভভাবে নিয়েছিলেন সুবহা।

TT Ads

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *