TT Ads

দেশে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনা ও প্রাণহানি বেড়ে যাওয়ায় মহাসড়কে মোটরসাইকেল চলাচল নিষিদ্ধ করতে সুপারিশ করেছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)।

সুপারিশে গত কয়েক বছরে দেশের সড়ক-মহাসড়কে দুর্ঘটনার তথ্য তুলে ধরা হয়। সেখানে বলা হয়, ২০২১ সালের ঈদুল ফিতরের আগে-পরে ৮ দিনে ৫৬টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৫৮ জনের মৃত্যু হয়। যেখানে প্রতিদিন গড়ে ৭ জন মারা যান।

অন্যদিকে চলতি বছরের ঈদুল ফিতরের ৮ দিনে ১০৬টি দুর্ঘটনায় ১০৬ জনের মৃত্যু হয়। যেখানে গড়ে প্রতিদিন ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।

তার আগে, ২০২০ সালের ঈদুল ফিতরের আগে-পরে ৭ দিনে ৪১টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৬০ জনের মৃত্যু হয়। ২০১৯ সালে ঈদুল ফিতরের আগে-পরে ৮ দিনে ৬০টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৯৩ জনের প্রাণহানি হয়েছিল।

বাংলাদেশ রোড সেফটি ফাউন্ডেশনের একটি জরিপ তুলে ধরে কর্মশালায় বলা হয়, ২০২১ সালে দেশে আগের বছরের চেয়ে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনা ৫০ শতাংশ ও মৃত্যু ৫১ শতাংশ বেড়েছে। বিআরটিএ নিজেও মনে করে ঈদুল ফিতরের সময় মোটরসাইকেলে যাত্রী বহন করাই মহাসড়কে দুর্ঘটনা ও প্রাণহানি বেড়ে যাওয়ার প্রধান কারণ। সে কারণেই জাতীয় মহাসড়কে মোটরসাইকেল চলাচল নিষিদ্ধের সুপারিশ করেছে সংস্থাটি।

এ বিষয়ে বিআরটিএর পরিচালক (রোড সেফটি) শেখ মোহাম্মদ মাহবুব-ই-রব্বানী গণমাধ্যমকে বলেন, ঈদুল ফিতরে সড়ক দুর্ঘটনায় হতাহতের ঘটনাগুলো বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, মহাসড়কে মোটরসাইকেল চলাচল এর পেছনে বড় একটি কারণ। তাই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। তবে মহাসড়কে মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধ হবে কি না, তা এখনই বলা যাচ্ছে না। 

গত রোববার (১৯ জুন) বিআরটিএর সড়ক নিরাপত্তা বিষয়ক এক কর্মশালায় এসব বিষয়ে আলোচনা করা হয় ও সুপারিশ তুলে ধরা হয়েছে।

TT Ads

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *